৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, শুক্রবার ২৪ নভেম্বর ২০১৭ , ১২:৩৩ পূর্বাহ্ণ

পরিত্র মহররম মাসে ন্যায়ের শিক্ষা


গো নিউজ২৪ | আরিফ হোসাইন কনক আপডেট: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ শুক্রবার
পরিত্র মহররম মাসে ন্যায়ের শিক্ষা

আজ থেকে পবিত্র মহররম মাস শুরু হয়েছে। এ মাসটি আরবি বছরের প্রথম মাস হওয়া সত্ত্বেও মুসলিমদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ মাস হিসেবে প্রধান্য পেয়ে আসছে। কেননা, পৃথিবীর ঊষালগ্ন থেকে এই মাসকে কেন্দ্র করে মুসলিম জাতির বিভিন্ন মৌজাজা (অলৌকিক) ও উল্লেখ্যযোগ্য ঘটনা ঘটে আসছে।

তবে সর্বশেষ ৬১ হিজরীতে প্রিয় নবীজীর দৌহিত্র ইমাম হোসাইন (রা.) ও তার স্বজনরা ইসলাম রক্ষার্থে কারবালার প্রান্তরে শাহাদাত বরণ করেন। এতে করে এই মাসটিকে শোকের মাস হিসেবে বিবেচনা করে শহীদানদের স্মরণে বিশেষ দোয়া করা হয়ে থাকে।

বৃহস্পতিবার চাঁদ দেখা কমিটি পবিত্র মহররম মাসের চাঁদ উঠেছে বলে নিশ্চিত করেছে। তাই শুক্রবার থেকে আরবি বছর ১৪৩৯ হিজরী সনের যাত্রা শুরু হয়েছে। এ হিসেবে আগামী ১ অক্টোবর রোববার দিন পবিত্র আশুরা পলিত হবে।

বছরের প্রথম মাসের প্রথম দিন খুশি কিংবা আনন্দের হলেও আরবি বছরের প্রথম দিনটি মুসলিমদের জন্য শোকের মাস হিসেবেই গণ্য করা হয়। তাছাড়া ইসলামের জন্য ইমাম হোসাইন (রা.) জীবন বিসর্জনের এক ন্যায়ের দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। অন্যায়ের কাছে কখনো পরাজয় বরণ না করাই ছিল এই শাহাদাত রবণের মূল কারণ।

অন্যায়কারী যতোই শক্তিশালী হোক না কেন সেই অন্যায়েরা কাছে কখনো মাথা নত না করাই ছিল ইমাম হোসাইনের (রা.) মূল আদর্শ। তাই তিনি নিজের জীবন বিসর্জন দিয়েও ন্যায়কে প্রতিষ্ঠা করে গেছেন। এর মধ্য দিয়ে তিনি সমগ্র মুসলিম জাতিতে ন্যায়ের পথে চলার পথ নিদর্শন করেছেন। অন্যদিকে ওনার নানা প্রিয় নবীজির প্রতিষ্ঠিত ইসলাম ধর্মকে তিনি নিজের জীবন দিয়ে রক্ষা করেছেন। কোনো অন্যায়কারী, বাতিল লোকের হাতে কলুষিত হতে দেন নি।

তবে বর্তমানে মুসলিম বিশ্বের একটি বড় অংশ সেই ইতিহাস ভুলে যেতে বসেছে। কেউ কেউ এসব রক্তবিজড়িত ইতিহাসের কথা জানেন না। আবার কিছু সংখ্যক মুসলিম এসব জানলেও সমাজের কাঠ মোল্লাদের বিদাত আর নাজায়েজের রোষাণলে পড়ে এসব ইতিহাসকে অস্বীকার করছেন। আর সেসব কাঠ মোল্লারা কারবালার সেই ইতিহাসকে বিকৃতি করে মানুষকে ভুল বুঝিয়ে সেই কাফের ইয়াজিদকে ভালো মানুষ সাজাতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। এভাবেই দিনের পর দিন আমরা বাতিল ফেতনার মধ্য দিয়ে আমাদের প্রকৃত ইতিহাস ও ধর্মের মূল কাঠামোকে দূরে সরিয়ে দিচ্ছি।

গোনিউজ২৪/এন