১২ বৈশাখ ১৪২৪, বুধবার ২৬ এপ্রিল ২০১৭ , ৪:২৭ পূর্বাহ্ণ

নাসির ছিলেন তার জীবনের একমাত্র পুরুষ


গো নিউজ২৪
|
নাসির ছিলেন তার জীবনের একমাত্র পুরুষ

রোমান্টিক নায়িকা হিসেবে বলিউডের একসময়ে সবার হৃদয়-বীণায় ঝঙ্কার তুলেছিলেন তিনি। হার্টথ্রব এই নায়িকার সঙ্গে জুটি বেঁধেছিলেন রাজেশ খান্না থেকে শাম্মী কাপুরের মতো চিরসবুজ নায়করা। যাঁর চোখের ইশারায় তামাম দুনিয়ার দর্শকের মন দুলে উঠত, তিনি আশা পারেখ। বয়স এখন ৭৪।  তার এই সুদীর্ঘ্য জীবনে তিনি বিয়ে করেননি থেকে গেছেন চিরকুমারী। তবে তার এই সঙ্গীহীন জীবনের রহস্যের ছেদ ঘটালেন সম্প্রতি।

মঙ্গলবার মুম্বইতে তার আত্মজীবনীমূলক বইয় ‘দ্য হিট গার্ল’-এর মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে তিনি জানালেন, পরলোকগত সিনেমা পরিচালক নাসির হুসেন ছিলেন তার জীবনে একমাত্র পুরুষ যাকে তিনি ভালবাসতেন।

‘হ্যাঁ, নাসির একমাত্র পুরুষ যাঁকে আমি ভালবাসতাম’। তার এই আত্মজীবনীতে আশা নাসির হুসেনের সঙ্গে তাঁর বিশেষ সম্পর্কের কথা বলেন সেই সাথে স্পষ্ট করেন তার বিয়ে না করার কারন।

নাসিরকে ভালবাসলেও তাঁর সঙ্গে ঘর বাধা হয়নি আশার। কারণ তিনি নাসিরকে তার বৈবাহিক সম্পর্ক থেকে বিচ্ছিন্ন করতে চাননি। আশা বলেন, ‘আমি ঘর ভাঙতে চাইনি’। 

আশা পারেখ জোর দিয়ে বলেন, ‘‘আত্মজীবনীতে তাঁদের কথা না লিখলে ভীষণ ভুল হবে যাঁরা আমার জীবনে গুরুত্বপূর্ণ’’।

১৯৫৯ সালে নাসির হুসেনের হাত ধরেই সিনেমায় অভিষেক হয় আশার। এরপর এই জুটির হাত ধরেই ‘তিসরি মঞ্জিল’, ‘ক্যারাভ্যান’-এর মতো সুপারহিট ছবি উপহার পেয়েছে ইন্ডাস্ট্রি। একসঙ্গে প্রায় সাতটি ছবিতে কাজ করেছেন তারা। 

গো নিউজহ২৪/এএইচ