২ কার্তিক ১৪২৪, মঙ্গলবার ১৭ অক্টোবর ২০১৭ , ৯:১৭ অপরাহ্ণ

ডন-সামিরার ‘কুখ্যাত’ ছবিটির পর এবার ভাইরাল ‘সুইসাইড নোট’!


গো নিউজ২৪ | বিনোদন প্রতিবেদক আপডেট: ১০ আগস্ট ২০১৭ বৃহস্পতিবার
ডন-সামিরার ‘কুখ্যাত’ ছবিটির পর এবার ভাইরাল ‘সুইসাইড নোট’!

ঢাকা: ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর মারা যান ঢাকাই চলচ্চিত্রের কালজয়ী চিত্রনায়ক সালমান শাহ। তার মৃত্যুরহস্যটি আজও অধরা। তার পরিবারের দাবি ছিলো, সালমানকে পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয়েছিলো, কিন্তু সালমানের স্ত্রীর দাবি ছিলো সালমান আত্মহত্যা করেছে। সেসময় আদালতও সমস্ত প্রমানাদি পাওয়ার পর সালমান আত্মহত্যা করেছে বলেই রায় দেয়। সালমান মৃত্যু রহস্য নিয়ে দীর্ঘ একুশ বছর আগের সেই ঘটনায় আবারও সরগরম গোটা বাংলা!

তার কারণ, গত ৭ আগস্ট সোমবার রাবেয়া সুলতানা রুবি নামের একজন নারী যুক্তরাষ্ট্র থেকে সোশাল সাইটে একটি ভিডিও বার্তা পাঠিয়ে কালজয়ী চিত্রনায়ক সালমান মৃত্যুরহস্যটি জাগিয়ে তুলেন। যিনি কিনা আবার সালমান হত্যাকাণ্ডের সন্দেহভাজন আসামিদের একজন। তিনি আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে ভিডিও বার্তায় বলেন, সালমান আত্মহত্যা করেনি। তাকে খুন করা হয়েছে। আর রুবির এমন বক্তব্যের পর অন্তর্জালে ভেসে ওঠছে সেই সময়ে সংবাদপত্রে ছাপা হওয়া নথিপত্র আর বহু গুঞ্জনে খবরও!

তারমধ্যে গত দুদিন ধরেই সোশাল সাইটে খল অভিনেতা ডনের সঙ্গে সালমান স্ত্রী সামিরার একটি অন্তরঙ্গ ছবি দেখা যাচ্ছে। ‘অপরাধ চক্র’ নামের ওই ম্যাগাজিটির দাবি, সালমানের ব্যস্ততার সুযোগে স্ত্রী সামিরা খল অভিনেতা ডনসহ আজিজ মোহাম্মদ ভাই এবং আরো অনেকের সঙ্গে নিজের বাসায় অন্তরঙ্গ সময় কাটাতেন। সেগুলো সালমানের চোখে পড়ায় তাকে সবাই মিলে খুন করার পরিকল্পনা করে। 

অন্যদিকে ডনের সঙ্গে সামিরার ওই ছবিটি ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ার পর এবার দেখা যাচ্ছে স্ত্রী সামিরাকে লেখা সালমানের একটি চিঠি ও ‘সুইসাইড নোট’ও ভাইরাল! সামিরাকে লেখা চিঠিতে সালমান তাকে ‘গৃহ লক্ষ্মী’ বলে সম্বোধন করে লিখেন, আমি জানি না কতোটুকু তোমাকে সুখি করতে পারছি। তবে সারাক্ষণই আমার চেষ্টা থাকে তোমাকে খুশি করার। তোমাকেও আমার সাথে আজ তিন বছর ধরে অনেক কষ্ট করতে হচ্ছে। তবে যে স্বপ্ন তুমি আমাকে নিয়ে দেখেছিলে জানি না তার কতোটুকু আমি সত্যি করতে পেরেছি। আমার অনিচ্ছাকৃত অসুস্থতার জন্য অনেক ইচ্ছাই পূর্ণ করতে পারলাম না। তবে আশা করবো অগ্মি দেয়া উপহার(SERA) এই বিশেষ দিনের কথা মনে করিয়ে দেবে। 

এছাড়া যে ‘কথিত’ সুইসাইড নোটটি ভাইরাল হলো তাতে নিজের নাম ও পিতার নাম উল্লেখ করে সালমান লিখেন, আমি সালমান শাহ, এই মর্মে অঙ্গীকার করছি যে, আজ অথবা আজকের পরে যেকোনো দিন আমার মৃত্যু হলে ওর জন্য কেউ দায়ী থাকবে না। স্বেচ্ছ্চায়, স্বজ্ঞানে এবং সুস্থ মস্তিস্কে আমি আত্মহত্যা করছি। 

গো নিউজ/ঢাকা