৮ আশ্বিন ১৪২৪, শনিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭ , ১:১৯ অপরাহ্ণ

জেলা পরিষদে যারা চেয়ারম্যান হলেন


গো নিউজ২৪ আপডেট: ২৮ ডিসেম্বর ২০১৬ বুধবার
জেলা পরিষদে যারা চেয়ারম্যান হলেন

আজ প্রথমবারের মতো দেশের সারা দেশে জেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ৯টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে চলে দুপুর ২টা পর্যন্ত।

মোট দেশের ৬১ জেলার মধ্যে ২২টি জেলা পরিষদে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। আর বগুড়ায় চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন। ফলে আজকের ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত হয়েছেন ৩৮জন চেয়ারম্যান।

ভোট শেষে ইতোমধ্যে গণনা শেষ হয়েছে। বিভিন্ন জেলা থেকে প্রাপ্ত খবরের ভিত্তিতে (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিতসহ) ৬০টি জেলায় নির্বাচিত চেয়ারম্যানদের নাম নিম্নে দেয়া হলঃ

ঢাকা বিভাগঃ

ঢাকা জেলা : মো. মাহবুবুর রহমান (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
মুন্সীগঞ্জ জেলা: মো. মহিউদ্দিন (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
কিশোরগঞ্জ জেলা: মো. জিল্লুর রহমান (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
শরীয়তপুর জেলা: ৫৪৬ ভোট পেয়ে অাওয়ামী লীগের ছাবেদুর রহমান খোকা সিকদার নির্বাচিত।
রাজবাড়ী জেলা: ৫০৫ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের ফকির আব্দুল জব্বার।
নারায়ণগঞ্জ জেলা : মো. আনোয়ার হোসেন (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
গাজীপুর জেলা : মো. আখতারুজ্জামান (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
টাঙ্গাইল জেলা :  ফজলুর রহমান খান ফারুক (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
ফরিদপুর জেলা : মো. লোকমান মৃধা (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
মানিকগঞ্জ জেলা: আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী অ্যাড. গোলাম মহীউদ্দীন চেয়ারম্যান বিজয়ী হয়েছেন।
মাদারীপুর জেলা:  আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী মিয়াজ উদ্দিন খান আনাসর প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।
নরসিংদী জেলা: জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান নির্বাচিত হয়েছেন।
গোপালগঞ্জ জেলা: আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী চৌধুরী এমদাদুল হক নির্বাচিত হয়েছেন।

ময়মনসিংহ বিভাগঃ

ময়মনসিংহ জেলা: আ.লীগ প্রার্থী ইউসুফ খান পাঠান নির্বাচিত হয়েছেন।
শেরপুর জেলা: আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হুমায়ুন কবীর রুমান চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।
জামালপুর জেলা: বিদ্রোহী প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমেদ চৌধুরী বিজয়ী হয়েছেন।
নেত্রকোনা জেলা: প্রশান্ত কুমার রায় (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।

সিলেট বিভাগঃ

সিলেট জেলা: সাবেক জেলা পরিষদের প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান নির্বাচিত হয়েছেন।
সুনামগঞ্জ জেলা: আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুল হুদা মুকুট বিজয়ী হয়েছেন।
মৌলভীবাজার জেলা: আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, সাবেক হুইপ ও সাবেক জেলা পরিষদ প্রশাসক আজিজুর রহমান নির্বাচিত হয়েছেন।
হবিগঞ্জ জেলা : ডা. মুশফিক হোসেন চৌধুরী (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।

 

বরিশাল বিভাগঃ

বরিশাল জেলা: আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. মইদুল ইসলাম নির্বাচিত হয়েছেন।
বরগুনা জেলা: বিপুল ভোটে বরগুনা-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মো. দেলোর হোসেন নির্বাচিত হয়েছেন।
ঝালকাঠি জেলা : সরদার শাহ আলম (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
ভোলা জেলা : আব্দুল মোমিন টুলু (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
পিরোজপুর জেলা: আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মহিউদ্দিন মহারাজ নির্বাচিত হয়েছেন।
পটুয়াখালী জেলা: পটুয়াখালীতে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী খান মোশারফ হোসেন নির্বাচিত হয়েছেন।

রংপুর বিভাগঃ

রংপুর জেলা: আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী অ্যাড. ছাফিয়া খানম বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।
লালমনিরহাট জেলা: আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী অ্যাডভোকেট মতিয়ার রহমান ৩৭৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।
কুড়িগ্রাম জেলা: কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি মো. জাফর আলী ৬৪৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।
ঠাকুরগাঁও জেলা : সাদেক কুরাইশী (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
দিনাজপুর জেলা :  আজিজুল ইমাম চৌধুরী (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
নীলফামারী জেলা: স্বতন্ত্র প্রার্থী জয়নাল আবেদীন ৪৪২ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত।
গাইবান্ধা জেলা:  স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আতাউর রহমান আতা (ঘোড়া) বিজয়ী হয়েছেন।
পঞ্চগড় জেলা: আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আমানুল্লাহ বাচ্চু টেবিল ফ্যান প্রতীক নিয়ে ১৩৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

খুলনা বিভাগঃ

খুলনা জেলা: জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক জেলা পরিষদ প্রশাসক শেখ হারুনুর রশিদ।
নড়াইল জেলা: স্বতন্ত্র প্রার্থী অ্যাডভোকেট সোহরাব হোসেন বিশ্বাস বিজয়ী হয়েছেন।
যশোর  জেলা :  শাহ হাদিউজ্জামান (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
কুষ্টিয়া জেলা : রবিউল ইসলাম (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
বাগেরহাট  জেলা: শেখ কামরুজ্জামান টুকু (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
সাতক্ষীরা জেলা:  আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী নজরুল ইসলাম জয়লাভ করেছেন।
মেহেরপুর জেলা: স্বতন্ত্র প্রার্থী আলহাজ গোলাম রসুল (আনারস) নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি ১০৭ ভোট পেয়েছেন।
চুয়াডাঙ্গা জেলা: আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী শেখ শামসুল আবেদীন খোকন (মোবাইল) প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।
ঝিনাইদহ জেলা:  আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী কনক কান্তি দাস (চশমা প্রতীকে) ৫৩৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।
মাগুরা জেলা: আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী পঙ্কজ কুমার কুন্ডু ঘোড়া প্রতীকে ২৬৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

চট্টগ্রাম বিভাগঃ

চট্টগ্রাম জেলা: এম এ সালাম (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
ফেনী জেলা: আজিজ আহমেদ চৌধুরী (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
কক্সবাজার জেলা: আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী সাবেক সংসদ সদস্য মোস্তাক আহমদ চৌধুরী চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।
কুমিল্লা জেলা: আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ও সাবেক নৌ-বাহিনীর প্রধান মো. আবু তাহের (চশমা) বিজয়ী হয়েছেন।
চাঁদপুর জেলা: আওয়ামী লীগের ওসমান গনি পাটওয়ারী নির্বাচিত হয়েছেন।
নোয়াখালী জেলা: আওয়ামী লীগের প্রার্থী সাবেক প্রশাসক ও মুক্তিযোদ্ধা ডা. এবিএম জাফর উল্যাহ ৮৮৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা: জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি আলহাজ শফিকুল আলম (এমএসসি) নির্বাচিত হয়েছেন।
লক্ষ্মীপুর জেলা: আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সাবেক অতিরিক্ত সচিব শামছুল ইসলাম (আনারস) ৫৫৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

রাজশাহী বিভাগঃ

রাজশাহী জেলা: আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মোহাম্মদ আলী সরকার নির্বাচিত হয়েছেন।
জয়পুরহাট  জেলা : আরিফুর রহমান রকেট (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
নওগাঁ জেলা : এ কে এম ফজলে রাব্বি (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
নাটোর জেলা : সাজেদুর রহমান খাঁন (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
সিরাজগঞ্জ জেলা : আব্দুল লতিফ বিশ্বাস (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)।
পাবনা জেলা: আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি রেজাউল রহিম লাল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।  
চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা:  জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মইনুদ্দিন মণ্ডল নির্বাচিত হয়েছেন।

 

গো-নিউজ২৪/বিএস