১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪, শনিবার ২৭ মে ২০১৭ , ১১:৪২ অপরাহ্ণ

জাকির নায়েককে নাগরিকত্ব দিয়েছে সৌদি আরব


গো নিউজ২৪ | আন্তর্জাতিক ডেস্ক আপডেট: ২০ মে ২০১৭ শনিবার
জাকির নায়েককে নাগরিকত্ব দিয়েছে সৌদি আরব

ভারতের ইসলাম ধর্ম প্রচারক জাকির নায়েককে নাগরিকত্ব দিয়েছে সৌদি আরব। মিডল ইস্ট মনিটরের এক প্রতিবেদনে এ খবর জানানো হয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, ভারতের রাজধানী দিল্লিতে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের অভিযোগে ইন্টারপোলের আটক এড়াতেই সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান তাকে সেদেশের নাগরিকত্ব দিয়েছেন।

জাকির আব্দুল করিম নায়েক ১৮ অক্টোবর ১৯৬৫ সালে ভারতের মহারাষ্ট্রের মুম্বাইয়ে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি মুম্বাইয়ের সেন্ট পিটার্স হাই স্কুলের ছাত্র ছিলেন। এরপর তিনি কিশিনচাঁদ চেল্লারাম কলেজে ভর্তি হন।

তারপর মেডিসিনের ওপর টোপিওয়ালা ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড নাইর হসপিটালে ভর্তি হন। অতঃপর, তিনি ইউনিভার্সিটি অফ মুম্বাই থেকে ব্যাচেলর অব মেডিসিন সার্জারি বা এমবিবিএস ডিগ্রি অর্জন করেন।

১৯৯১ সালে তিনি ইসলাম-ধর্ম প্রচারের কার্যক্রম শুরু করেন এবং আইআরএফ প্রতিষ্ঠা করেন। নায়েকের স্ত্রী, ফারহাত নায়েক, ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশনের নারীদের শাখায় কাজ করেন।

জাকির বলেন, তিনি আহমেদ দিদাতের দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়েছেন, যার সাথে তিনি ১৯৮৭ সালে সাক্ষাত করেন। ডাঃ জাকিরকে অনেক সময় ‘‘দিদাত প্লাস’’ বলা হয়, এই উপাধি দিদাত নিজে দেন।

এছাড়াও তিনি মুম্বাইয়ের ইসলামিক ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এবং ইউনাইটেড ইসলামিক এইডের প্রতিষ্ঠাতা, যা দরিদ্র ও অসহায় মুসলিম তরুণ-তরুণীদের বৃত্তি প্রদান করে থাকে। এছাড়াও ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশনের ওয়েবসাইটে তাকে "পিস টিভি নেটওয়ার্কের পৃষ্ঠপোষক ও আদর্শিক চালিকাশক্তি" হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে।

ভারতীয় মিডিয়া ইন্ডিয়া টুডের বরাতে জানা যায়, অবশেষে সৌদি আরব জাকির নায়েকের নাগরিকত্ব দিয়েছেন। জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে ইন্টারপোলে মামলা করা রয়েছে। তাকে যেন গ্রেফতার করা না হয়, সে নিশ্চয়তা দেয়ার জন্য সৌদি রাজা সালমান এই পন্থা অবলম্বন করলেন।

গুলসানের আর্টিজানে হামলার পর থেকে জাকির নায়েকের সাথে জঙ্গিবাদের সম্পৃক্ততা আছে বলে আকাশে-বাতাসে অনেক খবর চাউর হয়েছিল। তখন সৌদি বাদশাহের সহযোগিতা চেয়েছিলেন জাকির নায়েক। এবার সেই আবেদনের উত্তর দিল সৌদি বাদশাহ।


গো নিউজ২৪/এএইচ