৭ আশ্বিন ১৪২৪, শুক্রবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ , ২:১৬ অপরাহ্ণ

জঙ্গি মাহফুজ ৭ দিনের রিমান্ডে


গো নিউজ২৪ আপডেট: ০৯ জুলাই ২০১৭ রবিবার
জঙ্গি মাহফুজ ৭ দিনের রিমান্ডে

গুলশানে হোলি আর্টিসান বেকারিতে হামলায় অস্ত্রের জোগানদাতা জেএমবির ভারত শাখার সাবেক প্রধান পুরস্কারঘোষিত ভয়ঙ্কর জঙ্গি সোহেল মাহফুজ ওরফে হাতকাটা মাহফুজ ওরফে নসরুল্লাহর সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

রোববার তাকে ঢাকা মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের পরিদর্শক হুমায়ুন কবির। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম এ এইচ এম তোয়াহা এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

শুনানিতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের পুলিশ পরিদর্শক হুমায়ূন কবির বলেন, 'সোহেল মাহফুজের সঙ্গে আর কারা জড়িত, তা জানার জন্য তাকে ১০ দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন।'

আবেদনের পক্ষে রাষ্ট্রপক্ষে পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল্লাহ আবু বলেন, 'হলি আর্টিজান হামলায় কারা কারা জড়িত, তা আসামিকে রিমান্ডে নিলে পাওয়া যাবে।'

শুক্রবার চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার পুষ্কুনি এলাকা থেকে তিন সহযোগীসহ সোহেল মাহফুজকে গ্রেফতার করা হয়।

সোহেল ছাড়া গ্রেফতার অন্য তিন জঙ্গি হলো- নব্য জেএমবির অন্যতম প্রধান সমন্বয়ক, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার চরমোহনপুর মোড় এলাকার ইয়াসিন আলীর ছেলে জামাল ওরফে মোস্তফা কামাল (৩৪), নব্য জেএমবির আইটি বিশেষজ্ঞ ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার পার্বতীপুর গ্রামের আফজাল হোসেনের ছেলে হাফিজুর রহমান ওরফে হাসান (২৮) ও নব্য জেএমবির সামরিক শাখার প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সদস্য একই উপজেলার বিশ্বনাথপুর কাটিয়াপাড়া এলাকার এসলামের ছেলে জুয়েল ওরফে ইসমাইল (২৬)।

সোহেল মাহফুজ হলি আর্টিসানে হামলা পরিকল্পনায় অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। সে ছিল অস্ত্র সরবরাহকারীদের একজন। সোহেল ভারতের জেএমবি প্রধান ছাড়াও উত্তরাঞ্চলের কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিল।


গো নিউজ২৪/এএইচ