৫ কার্তিক ১৪২৪, শনিবার ২১ অক্টোবর ২০১৭ , ৩:২৯ পূর্বাহ্ণ

গরীবের দুঃখ বুঝতে ছদ্মবেশে বস্তিতে রাত কাটালেন মেয়র


গো নিউজ২৪ | আন্তর্জাতিক ডেস্ক আপডেট: ১২ আগস্ট ২০১৭ শনিবার
গরীবের দুঃখ বুঝতে ছদ্মবেশে বস্তিতে রাত কাটালেন মেয়র

তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলোর মতো বিশ্বের অনেক উন্নত দেশেও আছে নাগরিকদের গৃহ সংকট। সারাদিন কাজ শেষ করে সেখানোর ঘুমানোর একটু জায়গা পান না অনেক মানুষ। সেসব দরিদ্র মানুষের দুঃখ অনুভব করতেই ছদ্মবেশে তাদের সঙ্গে তিনদিন, দুইরাত কাটিয়েছেন শহরের মেয়র।

এই ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের উতাহ অঙ্গরাজ্যের সল্ট লেক শহরে। সেখানকার মেয়র বেন ম্যাক অ্যাডামস গৃহহীনদের সঙ্গে কাটিয়েছেন দিনরাত। চলতি বছরের মার্চে এই ঘটনা ঘটলেও এতদিন তা গোপন রাখা হয়েছিল। সম্প্রতি ঘটনাটি জানাজানি হয়ে যায়।

স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদন অনুসারে, গৃহহীনদের সাহায্য করা ও থাকার জন্য শহরে তৃতীয় একটি কেন্দ্র নির্মাণ করার কথা ছিল ম্যাক অ্যাডমসের। সেজন্য নির্দিষ্ট প্রস্তাব দিতে হবে তাকে। কিন্তু কী করে দেবেন প্রস্তাব, যদি তার কাছে শহরের গৃহহীনদের সম্পর্কে পর্যাপ্ত তথ্য না থাকে।

এই ভাবনা থেকেই অভিনব পন্থা বেছে নিলেন যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিমাঞ্চলের উতাহ প্রদেশের সল্ট লেক সিটির এই মেয়র। গৃহহীন সেজে গৃহহীনদের সঙ্গে কাটালেন তিনদিন, দুরাত। দুটি রাতের মধ্যে একটি রাত পথেই কাটিয়েছেন, অন্য রাতটি কাটিয়েছেন একটি আশ্রয়ে।

মেয়র বেন ম্যাক অ্যাডামস

এক শুক্রবার দপ্তরের কাজ শেষ করে টাকা-পয়সা, পরিচয়পত্র ছাড়াই বেরিয়ে পড়েন বেন। পরবর্তী তিন দিনে তার যা অভিজ্ঞতা হয়, সেটাকে ‘ভয়ঙ্কর’ বলে বর্ণনা করেছেন এই মেয়র। শহরটিতে ব্যাপক হিংসা এবং মাদকের ব্যবহার স্তম্ভিত করেছে তাকে। এমনিতেই সল্ট লেক সিটির রিও গ্রান্ডের ওই বস্তিটির কুখ্যাত হিসেবে পরিচিতি আছে।

পরিস্থিতি গভীরভাবে খতিয়ে দেখতে এছাড়া কোনো উপায় নেই বলেই মনে করেছিলেন বেন। কিন্তু অভিজ্ঞতা অর্জন করতে গিয়ে তিনি যে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছিলেন, সে কথা নিজেই স্বীকার করেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের উতাহ প্রদেশে গৃহহীনদের সমস্যার জটিল আর্থ-সামাজিক প্রভাব আছে। ২০১৫ সালের তুলনায় ২০১৬ সালে সে রাজ্যে গৃহহীনদের সমস্যা বেড়েছে।

তবে সেসব থেকে শহরটিকে মুক্ত করতে চান বেন। আর এ কারণে নিজের চোখে সমস্যাগুলো দেখতে চেয়েছেন তিনি। তার এই ব্যতিক্রমী কাজটি বিশ্বের অন্যান্য দেশের শহরগুলোর মেয়রদের জন্য একটি অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।

গো নিউজ২৪/ আরএস