৫ কার্তিক ১৪২৪, শুক্রবার ২০ অক্টোবর ২০১৭ , ১:০৬ অপরাহ্ণ
জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা

খালেদার আবেদন খারিজের আদেশ বহাল


গো নিউজ২৪ | গো নিউজ ডেস্ক আপডেট: ১২ মার্চ ২০১৭ রবিবার
খালেদার আবেদন খারিজের আদেশ বহাল

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় পুনরায় সাক্ষ্যগ্রহণের নির্দেশনা চেয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার করা আবেদন খারিজ করে হাইকোর্টের দেয়া আদেশ বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ।

রোববার প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহার নেতৃত্বাধীন আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এর আগে গত ১২ জানুয়ারি এ মামলায় পুনরায় সাক্ষ্য নেয়ার আবেদন খারিজ করে দেন বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি জে বি এম হাসানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ।

পরে এ আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করেন খালেদা জিয়া।

আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন এজেড মোহাম্মদ আলী। আর দুদকের পক্ষে ছিলেন খুরশিদ আলম খান।

বিচারিক আদালতে দুদকের করা এ মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থন করে খালেদা জিয়ার বক্তব্য উপস্থাপন পর্যায়ে রয়েছে।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, এ মামলায় ৩২ জনের নেয়া সাক্ষ্য বাতিল করে পুনরায় সাক্ষ্য নেয়ার জন্য বিচারিক আদালতে আবেদন করা হলে গত বছরের ১ ডিসেম্বর তা খারিজ হয়।

এর বিরুদ্ধে হাইকোর্টে গত বছরের ৬ ডিসেম্বর খালেদা জিয়া রিভিশন আবেদন করেন। পরে শুনানি শেষে ১২ জানুয়ারি আবেদনটি খারিজ করে দেন হাইকোর্ট।

২০১০ সালের ৮ আগস্ট খালেদা জিয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে তেজগাঁও থানায় জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলাটি দায়ের করে দুদক।

মামলায় ৩ কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়। পরে ২০১২ সালের ১৬ জানুয়ারি আদালতে চার্জশিট দাখিল করা হয়।

খালেদা জিয়া ছাড়া এ মামলার অন্য আসামিরা হলেন- খালেদা জিয়ার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, তার তৎকালীন সহকারী একান্ত সচিব ও বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) নৌনিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান।

এই মামলার পাশাপাশি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলার বিচারকাজ চলছে ঢাকার বকশীবাজারে আলিয়া মাদ্রাসাসংলগ্ন মাঠে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩-এর অস্থায়ী এজলাসে।