১৬ বৈশাখ ১৪২৪, শনিবার ২৯ এপ্রিল ২০১৭ , ১১:২০ অপরাহ্ণ

কোন ধর্মে কী খাওয়া নিষেধ?


গো নিউজ২৪ | গো নিউজ ডেস্ক
|
কোন ধর্মে কী খাওয়া নিষেধ?

ডেস্ক: মানুষ ক্ষুধা লাগলে খায়।  আর বেঁচে থাকার জন্য খাদ্যের প্রয়োজন আছে। কিন্তু ক্ষুধা লাগলেও খেতে পারে না মানুষ। সেটা কখন? যদি ধর্মীয় বিধি-নিষেধ থাকে।  তো আজ জেনে নেই কোন ধর্মে কোন খাবার নিষিদ্ধ।

ইসলাম ধর্ম
ইসলাম ধর্মে শূকরের মাংস ‘হারাম’৷ এছাড়া বেওয়ারিশ পশুপাখির মাংস হারাম এবং পশুপাখির রক্তও হারাম৷

হিন্দুধর্ম
হিন্দুধর্মে গরুকে পবিত্র বলে মনে করা হয়।  তাই গো-মাংস ভক্ষণ নিষিদ্ধ৷ ভেড়ার মাংস, মুরগির মাংস বা মাছ ছাড়া বস্তুত বাকি সব ধরনের মাংসই নিষিদ্ধ৷ হিন্দুদের একটি বড় অংশ নিরামিষ ভোজন করে থাকেন৷

ইহুদি

ইহুদিদের জন্য যা খাওয়া অনুমোদিত, তাকে বলা হয় কোশার ও যা খাওয়া নিষিদ্ধ, তাকে বলা হয় ত্রেফা৷ কোশার হলো সেইসব প্রাণী, যাদের পায়ের খুর পুরোপুরি চেরা এবং যারা জাবর কাটে, যেমন গরু, ছাগল কিংবা ভেড়া৷ ঘোড়া কিংবা শূকর এই কারণে কোশার নয়৷ কোশার মাছের আবার আঁশ ও পাখনা থাকা চাই৷

বৌদ্ধ
বৌদ্ধধর্মে সব ধরনের মাংস, এমনকি মাছ ভক্ষণও নিষিদ্ধ, কেননা বৌদ্ধরা বিশ্বাস করেন যে, কোনো প্রাণিসত্ত্বার মৃত্যুর জন্য তাদের দায়ী হওয়া উচিৎ নয়৷

শিখ
শিখরা শূকরের মাংস খান না৷ সেই সঙ্গে হালাল বা কোশার মাংসও তাদের কাছে অভক্ষ্য, কেননা অন্য কোনো ধর্মের ধর্মাচারে অংশগ্রহণ করা তাদের জন্য নিষিদ্ধ৷

জৈন
জৈনধর্মের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নীতি হলো অহিংসা, যে কারণে অধিকাংশ জৈন নিরামিষ আহার করেন৷ তবে তারা দুধ ও দুগ্ধজাত পণ্যও গ্রহণ করে থাকেন৷

গোনিউজ২৪/এম