১৬ চৈত্র ১৪২৩, বৃহস্পতিবার ৩০ মার্চ ২০১৭ , ১০:৪৪ অপরাহ্ণ

কুরবান


গো নিউজ২৪ আপডেট: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৬ সোমবার
কুরবান

 

কুরবান

 

পিতা ডাকিয়া কহিলেন পুত্রকে হে আমার প্রিয় সন্তান

স্বপ্নে আদিষ্ট হইয়াছি করিতে প্রিয় জিনিস কুরবান

একশত বছর কাঁদিয়া তোমাকে পাহিয়াছি পুত্রধন

তুমি বিনা প্রিয় এ জগতে আর আছে কোন রতন?

 

ধীরস্থির পুত্র পিতাকে কহিল শুনিয়া তাঁর স্বপ্নাদেশ

অতিসত্বর পালন করেন আপনি স্বীয় প্রভুর আদেশ

প্রস্তুত আমি আমাকে পাহিবেন ধৈর্য্যশীলদের মাঝে

সংকল্পচিত্তে আপনি মনোনিবেশ করেন আপনার কাজে।

 

সৃষ্টিকর্তার আদেশ পালনে তাঁরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ অন্তরে

স্বীয় পুত্রকে কুরবান করিতে চলিল মিনার প্রান্তরে

সেথায় পৌছে পুত্র কহিল আঁখি বেঁধে নিন হে পিতা

পুত্রের মায়াবী মুখ যেন আপন কাজে না হয় বাধা।

 

অতপর স্বীয় হস্তে পিতা ছুরি চালাইলেন পুত্রের গলাতে

রক্তের স্রোতে ভাসিল প্রস্তর অশ্রু ঝরিল আপন গালেতে

চোখের বাধন খুলিয়া পিতা দেখিলেন অবাক হইয়া

একি! কুরবান হয়েছে দুম্বা আর ছেলে আছে দাড়াইয়া।

 

হায়! নিজেকে ব্যর্থ ভাবিলেন পিতা মনে নিয়ে ভয়ডর

জানাইলেন প্রভু সন্তান নয় আমি চাহিয়াছি তোমার অন্তর

পিতা-পুত্রের এই দৃঢ়সংকল্পতা করিল প্রভুকে ধন্য

ওয়াজিব করিয়া দিলেন কুরবান সকল মুমিনের জন্য।

 

---------------বোরহান উদ্দীন--------------

 

গো-নিউজ২৪

 

শিল্প-সাহিত্য ও সংষ্কৃতি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত