৩০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, বৃহস্পতিবার ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭ , ৪:১২ অপরাহ্ণ

এলিয়ানরা কি সাম্প্রদায়িক চরিত্রের হবে?


গো নিউজ২৪ | বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক আপডেট: ১৮ জুলাই ২০১৭ মঙ্গলবার
এলিয়ানরা কি সাম্প্রদায়িক চরিত্রের হবে?

ঢাকা: যদি সত্যিই এলিয়েন থেকে থাকে আর তারা পৃথিবীতে আসে, তবে তারা যে পৃথিবীর প্রতি শান্তিপ্রিয় থাকবে তার সম্ভাবনা কতটুকু? এমন প্রশ্নের নানা উত্তর খোঁজার চেষ্টা চলছে বহুদিন ধরেই। তবে শেষ অবধি অনেক বিজ্ঞানী এবং সমাজ বিজ্ঞানীই ভয়ঙ্কর ইঙ্গিত করেছেন।

ধরে নেয়া যাক, এলিয়েন আছে। পৃথিবীতে আসার মত তাদের প্রযুক্তিও আছে। এরপর তারা পৃথিবীতেও এলো। কিন্তু এটা ভাবা যায়, পৃথিবীতে এমন কিছুই নেই যেটা এলিয়েনদের আকর্ষণ করতে পারে। তাই যদি তারা পৃথিবীতে আসতেই চায় শুধু মানুষের জন্য তাহলে দুটি বিষয়ের সম্ভাবনা আছে।

এক. এলিয়েনরা যুদ্ধবাজ। তারা অন্যান্য বুদ্ধিমান সভ্যতার বিনাশ চায়। দুই. এলিয়েনরা শান্তিপ্রিয়। তারা অন্যান্য বুদ্ধিমান প্রাণীর সভ্যতার আরো উন্নতি চায়। কিন্তু দুঃখের বিষয় হচ্ছে, প্রায় শতভাগ নিশ্চিতভাবেই বলা যায়, যে এলিয়েনসভ্যতা আসবে তারা যুদ্ধবাজ। তারা কোনোভাবেই অন্য সভ্যতার উন্নয়ন করতে চাইবে না। 

আর তাছাড়া আমাদের সভ্যতা এখনও এ জন্য প্রস্তুত নয়। মানব সভ্যতার শত শত বছরের ইতিহাসে এটা প্রতীয়মান যে তাদের দর্শন হল তারা সাম্প্রদায়িক। প্রত্যেকেই তাদের পরিবারের, তাদের সম্প্রদায়ের নিরাপত্তা চায়। অন্য সম্প্রদায় কোনো বিপদে থাকলে সে মাথা ব্যথা আরেক সম্প্রদায়ের থাকে না।

অন্য সম্প্রদায়ের জন্য সমবেদনা একটি বাইরের ধারণা। সাম্প্রদায়িকতা অনেক বড় শক্তি হিসেবে এখনও টিকে আছে। যেমন আমেরিকার মানুষ একজন আমেরিকানের জন্য যতটা গুরুত্ব দেখাবে, তার সমান গুরুত্ব কখনই একজন অআমেরিকানের জন্য দেখাবে না।

সাম্প্রদায়িকতা এখন বিভিন্ন সীমানায় আবদ্ধ। তারপরও তা সব জাতির ভেতরেই আছে। হ্যাঁ, কিছু মানুষ অবশ্যই মানুষ ছাড়া অন্য জীবের প্রতি সহানুভতিশীল তবে তার পরিমাণ খুবই নগণ্য।

একই কারণে কোনো এলিয়েন সভ্যতাই কোনো উচ্চ প্রযুক্তি মানুষকে দেবে না। যদি সত্যিই এরকম কোনো মহৎপ্রাণ এলিয়েন সভ্যতা থেকে থাকে যারা মানুষকে তাদের উচ্চ প্রযুক্তি শেখাবে তবে তারা তার আগেই নিশ্চিত হয়ে নেবে তাদেরই শেখানো বিষয় দিয়ে তারাই যেন মানুষ দ্বারা আক্রমণের শিকার না হয়।

গো নিউজ২৪/এন