১০ আশ্বিন ১৪২৪, সোমবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭ , ৭:২০ অপরাহ্ণ

এরা বাংলাদেশের সাধারণ কেউ নন, ছবিটি শেয়ার হয়েছে আঠারশ’র বেশি!


গো নিউজ২৪ | অনলাইন ডেস্ক আপডেট: ১৭ জুলাই ২০১৭ সোমবার
এরা বাংলাদেশের সাধারণ কেউ নন,  ছবিটি শেয়ার হয়েছে আঠারশ’র বেশি!

তখন ছিল না সেলফি, ছিল না ডি,এস,এল,আর ক্যামেরার বাড়াবাড়ি। বন্ধু আড্ডায় মাল্টিমিডিয়া সেল ফোনে নাক ডুবিয়ে কাছাকাছি থেকেও অসীম দূরত্বের বিড়ম্বনাও ছিল না অতটা। বন্ধুত্ব বলতে তখন খাঁটি বন্ধুত্বকেই বোঝাত। এই ছবিটিই তার সাক্ষ্য বহন করে। কারা এই কীর্তিমানেরা? এক এক করে বলছি। শুরু করব বাম দিক থেকে।

সংবাদের শীর্ষে ব্যবহৃত ছবিটির একেবারে বাম পাশে যিনি রয়েছেন, তিনি দেশীয় পপ সঙ্গীত মাতিয়ে রেখেছেন বহুদিন ধরেই। ‘ও সখিনা গেছোস কিনা ভুইলা আমারে’ গানটি শুনেছেন নিশ্চয়ই? তবে তো ইতোমধ্যেই জেনে গিয়েছেন, তিনি আর কেউ নয়, ফকির আলমগীর।

তারপর কালো শার্ট পরিহত ব্যক্তিটি কে? অনুমান করুন। একটু সুবিধা করে দিই। ‘আমার সারা দেহ খেয়ো গো মাটি’ কিংবা ‘হায় রে মানুষ রঙিন ফানুশ’- এ দুটি কালজয়ী গান ঝরেছে তার কণ্ঠ থেকেই। হ্যাঁ, ঠিকই ধরেছেন, তিনি আমাদের সম্পদ, আমাদের দেশের গৌরব ‘এন্ড্রু কিশোর’।

তার পাশেই দাঁড়িয়ে আছেন তিনি-‘প্রথম বাংলাদেশ আমার শেষ বাংলাদেশ’, ‘সূর্যোদয়েও তুমি সূর্যাস্তেও তুমি’, ‘যে ছিল দৃষ্টির সীমানায়’, ‘ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে’, ‘কী জাদু করিলা পিরিতি শিখাইলা’ সহ আরও অনেক উল্লেখযোগ্য গানের রচয়িতা- ‘গীতিকার মনিরুজ্জামান মনির’।

সর্ব ডানের ব্যক্তির নাম ‘ফিরোজ সাঁই’। ‘এক সেকেন্ডের নাই ভরসা’ গানটি তাঁরই গাওয়া। এছাড়াও ‘ইস্কুল খুইলাছে রে মওলা, ইস্কুল খুইলাছে’ গানটিও তারই গাওয়া। ১৯৯৫ সালের ১২ জানুয়ারি শিল্পকলা একাডেমী আয়োজিত একটি গানের অনুষ্ঠানে 'এক সেকেন্ডের নাই ভরসা’ গানটি গাওয়ার সময় মৃত্যুবরণ করেন ফিরোজ সাঁই।

উল্লেখ্য, সত্তর দশকে সম্মিলিত ভাবে তোলা এই চারজন গুণী শিল্পীর ছবিটি ফেসবুকের- ‘বাংলাদেশের দুষ্প্রাপ্য কিছু ফটোগ্রাফের কালেকশন’ নামক পেজ থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে। ছবিটি ইতোমধ্যে ১৮৬৪ বার শেয়ার হয়েছে ফেসবুকে। (প্রিয়.কম) 

গো নিউজ২৪/পিআর