১১ আষাঢ় ১৪২৪, রবিবার ২৫ জুন ২০১৭ , ৮:০৪ অপরাহ্ণ

এবার নিষিদ্ধ হচ্ছেন বাপ্পারাজও!


গো নিউজ২৪ | নিউজ ডেস্ক আপডেট: ১৫ মে ২০১৭ সোমবার
এবার নিষিদ্ধ হচ্ছেন বাপ্পারাজও!

ঢাকাইয়া পরিচালকদের ‘বেকার’ বলে তোপের মুখে পড়েছিলেন সুপারস্টার অভিনেতা শাকিব খান। এমনকি বাংলা সিনেমায় তাকে পরিচালক সমিতি নিষিদ্ধ পর্যন্ত করেছিলো, দেশের পরিচালকদেরও নিষেধ ছিলো শাকিবকে নিয়ে সিনেমা তৈরির। 

কিন্তু নিষেধাজ্ঞা না মেনে শাকিবকে নিয়ে সিনেমা বানানোয় পরিচালক সমিতির সদস্য বাতিল হয়ে যায় ‘রংবাজ’ নির্মাতা শামীম আহমেদ রনির। আর এবার সেই একই পথে হাঁটতে চলেছেন নায়ক রাজ রাজ্জাকের ছেলে, চিত্রনায়ক ও পরিচালক বাপ্পারাজও!

শাকিবের নিষিদ্ধ থাকার সময়ে তার পক্ষে বিপক্ষে অনেকেই কথা তুলেন।  এদের মধ্যে চিত্রনায়ক ও পরিচালক বাপ্পারাজ ছিলেন অন্যতম। কারণ, বেশকিছু সংবাদ মাধ্যমে শাকিবের উপর পরিচালক সমিতির নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্তকে লঘু পাপে গুরু শাস্তি বলে মন্তব্য করেছিলেন বাপ্পারাজ।  

শাকিব খানের পক্ষ নিয়ে বাপ্পারাজ বলেছিলেন, ‘শাকিব খান এখন বাংলাদেশের এক নম্বর অভিনেতা, আপনি মানেন আর না মানেন। এখন কেউ যদি দাবি করে শাকিব খানকে তিনি তৈরি করেছেন তাহলে শাকিবও বলতে পারেন, তিনি ওই পরিচালকের ছবি করেছেন বলেই ছবি হিট হয়েছে। আমাদের দেশের মানুষ কখনোই একজনকে ওপরে উঠতে দেন না, কেউ উঠতে চাইলেই তাকে আমরা টেনে নামানোর চেষ্টা করি। এটা কাম্য না।’

শাকিবকে বয়কটের বিষয়টি নিয়ে বাপ্পারাজ বলেন,‘পরিচালক সমিতির কারো সাথে দ্বন্দ্ব হলেই তাকে তারা শত্রু বানিয়ে ফেলে, এটা ঠিক নয় নয়। এতে আমাদের ইন্ডাস্ট্রিরই ক্ষতি হচ্ছে। পরিচালক সমিতির ভেতরে কী হয় আমি জানি, আমি কার্য নির্বাহী সদস্য হিসেবে সেখানে কিছুদিন গিয়েছি। তাদের উচিৎ সিনেমার উন্নয়নে মনোনিবেশ করা। যদি কারো দ্বারা ফিল্মের উন্নয়ন হয়, সেটা পরিচালক সমিতির দ্বারা সম্ভব। পরিচালক সমিতির হাতে অনেক ক্ষমতা ও সুযোগ রয়েছে। বাংলা চলচ্চিত্রকে চাইলে তারা অনেকদূর নিয়ে যেতে পারে। বুস্টিং, প্রমোটিং এগুলো সম্পূর্ণ তাদের এখতিয়ারে রয়েছে। অথচ তারা কোনো কাজ না করে একজন আরেকজনের পেছনে লাগছে।’

বাপ্পারাজ আরও বলেন, ‘শাকিব খান আজ কলকাতার ছবিতে কাজ করছে, সেখানে তার জনপ্রিয়তা বেড়েছে। এটা আমাদের ইতিবাচকভাবে নিতে হবে। আজ কেউ যদি হলিউডের ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ পায়, তাহলে কেন করবে না!’

তাই বাপ্পারাজের এমন বক্তব্যকে আমলে নিয়েছে পরিচালক সমিতি।  বাপ্পারাজকে নোটিশ পাঠিয়েছে সমিতি। সেখানে বাপ্পারাজকে সাত দিনের সময় বেধে দিয়ে চলচ্চিত্র সমিতির সদস্য হিসেবে তাকে জানানো হয়েছে, একজন চলচ্চিত্র পরিচালক হিসেবে আপনি পরিচালক সমিতিকে হেয় প্রতিপন্ন করে দৈনিক কালেরকন্ঠ’সহ বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকায় যে সাক্ষাৎকার প্রদান করেছেন। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি মনে করে, উল্লেখিত সাক্ষাৎকারে আপনি সমিতিকে হেয় প্রতিপন্ন এবং সমিতির শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছন। 

সমিতিকে হেয় প্রতিপন্ন করে আপনি যে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন, সে বিষয়ে আপনি গণমাধ্যমে অদ্যবধি কোনো প্রতিবাদলিপি প্রেরণ করেননি বা দুঃখ প্রকাশও করেননি। তাই সমিতি মনে করে আপনার সাক্ষাৎকারের বক্তব্যের বিষয়টি আপনি ইচ্ছাকৃতভাবে প্রদান করেছেন। 

এমতাবস্থায় গঠনতন্ত্রের ৫ (ক) ধারা মোতাবেক কেন আপনার সদস্যপদ বাতিল করা হবে না পত্রপ্রাপ্তির ৭ কার্যদিবসের মধ্যে উল্লেখিত বিষয়ে সমিতি বরাবর সন্তোষজনক ব্যাখ্যা প্রদানের জন্য অনুরোধ করা হলো। বিষয়টি অতীব জরুরী।

ধারনা করা হচ্ছে, আগামী সাতদিনের মধ্যে যদি পরিচালক সমিতির মনোপূত কোনো উত্তর বাপ্পারাজ না দিতে পারেন, তাহলে শাকিব খানের নির্মিতব্য ছবি ‘রংবাজ’ নির্মাতা শামীম আহমেদ রনির মতোই অবস্থা বরণ করে নিতে হবে। এখন দেখার বিষয়, সমিতির নোটিশের জবাবে বাপ্পারাজ কি পদক্ষেপ নেন?


গো নিউজ২৪/এএইচ