১২ বৈশাখ ১৪২৪, বুধবার ২৬ এপ্রিল ২০১৭ , ৪:২৫ পূর্বাহ্ণ

এনার্জি-সফট ড্রিংকসে যত ক্ষতি


গো নিউজ২৪ | অনলাইন ডেস্ক
|
এনার্জি-সফট ড্রিংকসে যত ক্ষতি

ক্লান্তি এড়াতে বা বন্ধু-বান্ধবের সাথে আড্ডায় আমরা সহজেই বেছে নিই এনার্জি বা সফট ড্রিংক। এতে সাময়িক তুষ্টি লাভ হলেও দীর্ঘদিন সেবনে রয়েছে মারাত্মক শারীরিক ঝুঁকি।

সম্প্রতি মাদকনিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের (ডিএনসি) এক প্রতিবেদন বলা হয়েছে, বর্তমানে দেশে ৪২ ধরনের এনার্জি ড্রিংকস প্রচলিত আছে। এর মধ্যে ৩১টিতেই ক্ষতিকর ক্যাফেইন (এক ধরনের মাদক) পাওয়া গেছে। আর ২১টিতে পাওয়া গেছে ‘সিলডেনাফিল সাইট্রেট’, যা যৌন উত্তেজক হিসেবে কাজ করে। এছাড়া আরও ৮ ধরনের মাদকের উপাদান পাওয়া গেছে এসব এনার্জি ড্রিংকসে।

ডিএনসি’র মতে, এনার্জি ড্রিংকসে ১৪৫ মিলিগ্রাম ক্যাফেইন ব্যবহারের অনুমোদন রয়েছে। কিন্তু পরীক্ষা-নিরীক্ষায় বাজারে প্রচলিত ড্রিংকসে এর চেয়ে অনেক বেশি মাত্রার ক্যাফেইন পাওয়া গেছে, যা মানব দেহের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।

চিকিৎসকদের মতে, একজন পূর্ণবয়স্ক পুরুষের দেহে ৪০০ মিলিগ্রাম ক্যাফেইনই যথেষ্ট। একজন নারীর জন্যে এ মাত্রা ৩০০ মিলিগ্রাম। অথচ একটা এনার্জি ড্রিংকের ক্যানেই থাকে ৩৬০ মিলিগ্রাম ক্যাফেইন। তারা জানান, এনার্জি ড্রিংকস পান করলে দীর্ঘ মেয়াদে মানুষের মস্তিষ্ক বিকৃতি হতে পারে, চরম ক্ষতি করতে পারে গর্ভবতী মা ও সন্তানের। উচ্চমাত্রার ক্যাফেইন মৃগীরোগ সৃষ্টিতেও ভূমিকা রাখে। ক্যাফেইনের আরেকটি প্রভাব হলো, এটি প্রস্রাবের প্রবণতা বাড়ায় এবং দেহকে পানিশূন্য করে ফেলে।

বিএসটিআই’র তথ্যানুযায়ী, এখন পর্যন্ত কোনো এনার্জি ড্রিংক উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানকে অনুমোদন দেওয়া হয়নি। অথচ বাজারে দেদারসে বিক্রিত এনার্জি ড্রিংকগুলোতে বিএসটিআই’র লোগো ব্যবহার করা হচ্ছে।

সফট ড্রিংকসের ক্ষতিকারক দিক

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের এক গবেষণায় দেখা গেছে, গর্ভবতী মহিলাদের মধ্যে যারা সফট ড্রিংক পান করেছেন, তাদের গর্ভপাত, সময়ের আগেই প্রসব বা কম ওজনের বাচ্চা জন্ম দেওয়ার ঝুঁকি রয়েছে।

স্বাস্থ্যবিদরা জানান, সফট ড্রিংকস শরীরের ভিটামিন এ, ক্যালসিয়াম এবং ম্যাগনেসিয়াম শোষণ করে নেয়। ফলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থাও দুর্বল হয়ে পড়তে পারে। এসব ড্রিংকসে উচ্চমাত্রার ফ্রুক্টোজ কর্ন সিরাপ থাকে যা শরীরের টিস্যু নষ্ট করে দেয়। এতে তাড়াতাড়ি বুড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এছাড়া সফট ড্রিংকস ডায়াবেটিক রোগের সম্ভাবনা বাড়িয়ে দেয়। সুগার ফ্রি সফট ড্রিংকস ওজন কমানোর জায়গায় বাড়িয়ে দিতে সাহায্য করে।

সাধারণত, যে কোনো মিষ্টি অনুভূতি শরীরের ফ্যাট এবং কার্বোহাইড্রেট সঞ্চয়ের সংকেত পাঠাবে এবং এতে ক্ষুধা বাড়বে। ফলে শরীরে ইনসুলিন মাত্রা বেড়ে গিয়ে ফ্যাট বার্ন বাধাগ্রস্থ হবে। এছাড়া সফট ড্রিংকস দেহে অক্সিজেনের পরিমাণ কমিয়ে ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়। ক্যারামেলের রং আনার জন্যে সফট ড্রিংকে পলি-ইথিলিন গ্লাইকল নামের রাসায়নিক উপাদান ব্যবহার করা হয়; যা ক্যান্সার সৃষ্টির জন্য দায়ী।

চিকিৎসকদের মতে, ক্ষতিকর ও নেশাজাতীয় উপাদান মেশানো এক বা দুই বোতল সফট ড্রিংকই অনিদ্রা, নার্ভাসনেস ও দ্রুত হৃদস্পন্দন সৃষ্টির জন্যে যথেষ্ট। বেশি পরিমাণে খেলে তা অনিয়মিত হৃদস্পন্দন থেকে শুরু করে আতঙ্ক এবং উদ্বেগ প্রবণতা, পেশিতে টান লাগা, অসংলগ্ন কথাবার্তা, বিষণ্নতা এবং উচ্চ রক্তচাপ সৃষ্টি করতে পারে।

 

গো নিউজ২৪/জা আ 

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত