১০ আষাঢ় ১৪২৪, শনিবার ২৪ জুন ২০১৭ , ৯:৩৬ পূর্বাহ্ণ

ইসলাম ধর্মে গর্ভপাত প্রসঙ্গ


গো নিউজ২৪ | গো নিউজ ডেস্ক আপডেট: ০৫ মার্চ ২০১৭ রবিবার
ইসলাম ধর্মে গর্ভপাত প্রসঙ্গ

ডেস্ক: গর্ভপাত বিষয়টি নিয়ে বিতর্কের শেষ নেই। কেই বলছেন ধর্ম এটা সমর্থন করে না আবার অনেকে ঘুরিয়ে পেচিয়ে গর্ভপাতকে সময়ের প্রেক্ষিতে যৌক্তিক মনে করছেন। বিভিন্ন ধর্মে গর্ভপাত সম্পর্কে ভিন্ন ভিন্ন মতামত দেয়া হয়েছে। কিন্তু ইসলাম ধর্মে গর্ভপাত নিয়ে কী আছে। 

কোরআন শরিফে স্পষ্টভাবে গর্ভপাতের বিষয়ে কিছু বলা নেই। তবে কিছু নির্দেশনা আছে যেগুলো গর্ভপাতের ক্ষেত্রে প্রয়োগ করা যেতে পারে বলে ইসলামি পণ্ডিতরা মনে করেন।

সূরা আল-মায়দাহের ৩০তম আয়াতে বলা হয়েছে, ‘‘যে বা যারা একটি আত্মার জীবনকে হত্যা থেকে বিরত থেকেছে, সে বা তারা যেন সব মানুষের জীবনকে হত্যা থেকে বিরত থেকেছে। যে বা যারা একটি আত্মাকে হত্যা করেছে, সে বা তারা যেন পুরো মানবজাতিকেই হত্যা করেছে।’’ 

অধিকাংশ মুসলিম পণ্ডিত মনে করেন, গর্ভে থাকা ভ্রুণকেই ইসলাম জীবন হিসেবে স্বীকৃতি দেয়।

যদি মায়ের প্রাণ হুমকির মুখে থাকে তাহলে গর্ভপাত সমর্থন করে ইসলাম। মুসলিম আইন ‘দু’টি মন্দ জিনিসের মধ্যে যেটি কম মন্দ তাকে’ বেছে নেয়ার প্রতি সমর্থন জানায়। এক্ষেত্রে গর্ভপাতকেই ‘কম মন্দ’ মনে করা হয়। এর পক্ষে কয়েকটি যুক্তি হচ্ছে মা-ই ভ্রুণের ‘জন্মদাতা’, মায়ের জীবন আগে থেকেই প্রতিষ্ঠিত, মায়ের অন্যান্য দায়িত্ব আছে, মা একটি পরিবারের অংশ এবং মাকে মরতে দিলে অধিকাংশ ক্ষেত্রে ভ্রুণও মরে যায়।

কেউ যদি মনে করেন আগত শিশুকে লালনপালন করা তার পক্ষে হয়ত সম্ভব হবে না এবং সেই ভয়ে ভ্রুণকে মেরে ফেলেন, তাহলে সেটি মহাপাপ বলে বিবেচিত হবে। সুরা আর ইসরার ৩২ নম্বর আয়াতে বলা হয়েছ, ‘‘তোমরা তোমাদের সন্তানকে দারিদ্রতার ভয়ে হত্যা করো না। আমরা তোমাকে এবং তোমার সন্তানকে দেখে শুনে রাখি। তাই তাদের হত্যা করে সত্যিকার অর্থেই একটি মহাপাপ।’’

গর্ভধারণের চার মাসের মধ্যে যদি নিশ্চিত হওয়া যায় যে, ভ্রুণ ত্রুটি নিয়ে বাড়ছে এবং এর সমাধান সম্ভব নয়, এবং এই সমস্যা পরবর্তীতে শিশুর জীবন দুর্বিসহ করে তুলতে পারে, তাহলে সেক্ষেত্রে গর্ভপাত সমর্থন করেন অনেক পণ্ডিত। এক্ষেত্রে অন্তত দু’জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে বলা হয়েছে। অবশ্য এক্ষেত্রেও গর্ভপাতের পক্ষে নন এমন পণ্ডিতও আছেন।

গর্ভধারণের সময় ১২০ দিন পেরিয়ে গেলে গর্ভপাত সমর্থন না করার পক্ষে মোটামুটি পণ্ডিতদের মধ্যে মিল রয়েছে। তবে এক্ষেত্রে যদি ভ্রুণের ত্রুটি মায়ের জীবন হুমকির মুখে ফেলে দেয় তাহলে অন্য কথা।

২০১৩ সালে প্রকাশিত পিউ রিসার্চ সেন্টারের এক জরিপ বলছে, বাংলাদেশের প্রায় ১৮ শতাংশ মুসলিম নাগরিক নৈতিক বিবেচনায় গর্ভপাত সমর্থন করেন। অর্থাৎ প্রতি পাঁচজন বাংলাদেশি মুসলমানের মধ্যে একজন গর্ভপাতের পক্ষে। ৩৭টি দেশের মসুলমানদের ওপর পরিচালিত এই জরিপে বাংলাদেশেই গর্ভপাতের পক্ষে সবচেয়ে বেশি মানুষ পাওয়া গেছে। 

গোনিউজ২৪/এম