১১ শ্রাবণ ১৪২৪, বুধবার ২৬ জুলাই ২০১৭ , ৪:৪১ অপরাহ্ণ

ইউরোপের ১১ সেরা সৈকত


গো নিউজ২৪ আপডেট: ০৭ মার্চ ২০১৭ মঙ্গলবার
ইউরোপের ১১ সেরা সৈকত

ডেস্ক: ঘুরতে যাওয়ার জন্য অনেক পর্যটকের কাছে এমন শহর পছন্দ যেখানে গেলে শহরের আমেজও পাওয়া যায়, আবার চাইলে একটুখানি সৈকতে হেঁটেও আসা যায়।

বার্সেলোনা
এক দু’টি নয়, বার্সেলোনায় সৈকত আছে সাতটি। গত তিন দশকে বিশ্বের শহরগুলোর মধ্যে পর্যটন বৃদ্ধির হার সবচেয়ে বেশি ছিল বার্সেলোনাতে। ১৯৯০ সালে ১ দশমিক ৭ মিলিয়ন পর্যটক অন্তত একরাত বার্সেলোনাতে কাটিয়েছিলেন। ২০১৬ সালে এসে সংখ্যাটি দাঁড়িয়েছে ১৭ মিলিয়নে।

সান সিবাস্টিয়ান
স্পেনের বাস্ক অঞ্চলের উপকূলীয় এই শহরেও বেশ কয়েকটি বিচ আছে। সবচেয়ে জনপ্রিয় হলো ‘লা কনচা বে’। স্প্যানিশ কনচা শব্দের অর্থ শামুকের খোল৷ সৈকতটি দেখতে সেরকম বলে এর এমন নাম হয়েছে। বালুময় বিচটি ৪০ মিটারেরও বেশি প্রশস্ত। তবে যারা সার্ফিং করেন তাদের পছন্দ থুরিওলা বিচ।

নিস
দক্ষিণ ফ্রান্সের নিস শহরের সৈকত ধরে প্রায় সাত কিলোমিটার দীর্ঘ সড়ক চলে গেছে। সেখান দিয়ে হাঁটতে পছন্দ করেন পর্যটকরা। তবে নিসের সৈকতে নুড়ি থাকায় সেখানে সমুদ্রস্নান খুব একটা আরামদায়ক নয়।

মার্সেই
গ্রীষ্মে তামপাত্রা ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি হলে পর্যটকরা প্লাজ ডে কাতালানস সৈকতে চলে যান। ভিয়ো পোর্ট থেকে সেখানে খুব সহজেই হেঁটে যাওয়া যায়। তবে ফ্রান্সের অন্যান্য সৈকতের মতো ওই বিচেও প্রবেশে অর্থ লাগে। তাই শহরের কাছেই থাকা ছোট-বড় কোভগুলো একটু বেশি জনপ্রিয়, কেননা সেখানে যেতে টাকা লাগে না।

ট্রোভিল
ফ্রান্সের নরম্যান্ডি এলাকার অন্যতম সুন্দর সৈকতটি ট্রোভিলে অবস্থিত। বালুময় এই বিচের পাশেই ফ্রান্সের প্রথম সমুদ্র তীরবর্তী রিসোর্ট গড়ে উঠেছিল। ঊনিশ শতকে সেখানে পর্যটকদের জন্য কাঠের পায়ে হাঁটা রাস্তা নির্মাণ করা হয়েছিল।

দ্য হেগ
শহরের কেন্দ্র থেকে মাত্র ১৫ মিনিটেই সৈকতে যাওয়া যায়। শেভেনিঙে এলাকাটি ছোট্ট মাছ ধরার গ্রাম থেকে ক্রমেই নেদারল্যান্ডসের সবচেয়ে বড় সমুদ্র তীরবর্তী রিসোর্ট এলাকা হিসেবে গড়ে উঠেছে।

ওস্টএন্ড
বেলজিয়ামের এই সৈকতে গেলে নয় কিলোমিটার এলাকা জুড়ে বালুর সৈকত পাওয়া যাবে। একসময় রাজপরিবারের গ্রীষ্মকালীন বাসস্থান ছিল সেখানে।

কামোলগি
ইটালির এই সৈকত এলাকায় ছোট ছোট শহর আছে। আর প্রতিটি শহরে আছে একটি করে বিচ। দুপুরে খাবার আগে কাঁধে তোয়ালে নিয়ে একটুখানি পানিতে দাপাদাপি করা যায়। আর সন্ধ্যা হলে সৈকত সংলগ্ন খাড়া পাহাড় আর জেটিতে মেতে ওঠা যায় রোম্যান্টিকতায়।

ভেনিস
ভেনিসে গিয়ে সৈকতের খোঁজ পেতে আপনাকে পিয়াৎসা সান মার্কো থেকে ভাপোরেততে (ওয়াটার বাস) করে লিডো দ্বীপে যেতে হবে। সময় লাগবে মাত্র ১০ মিনিট৷ ঊনিশ শতক থেকেই সৈকতটি পর্যটকদের বেশ প্রিয়।

ডুবরনিক
ক্রোয়েশিয়ার এই সৈকত শহরের সিটি সেন্টারে গেলে মধ্যযুগীয় আমলের চিহ্ন পাওয়া যায়। অ্যাড্রিয়াটিক সাগরের ধারে অবস্থিত সবচেয়ে সুন্দর শহরগুলোর একটি ডুবরনিক। ১৯৭৯ সাল থেকে ডুবরনিক শহরের পুরনো অংশের নাম ইউনেস্কোর ঐতিহ্যের তালিকায় রয়েছে।

হামবুর্গ
সৈকত হতে হলে সাগরের পাশের শহর হতে হবে এমন তো কোনো কথা নেই। তাই এলবে নদীর তীরের শহর জার্মানির হামবুর্গের বিচে গেলে বাড়তি পাওনা হিসেবে বড় বড় কনটেনার জাহাজের আসা যাওয়া দেখতে পাওয়া যায়।

গোনিউজ২৪/এম

পর্যটন বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত