২ কার্তিক ১৪২৪, মঙ্গলবার ১৭ অক্টোবর ২০১৭ , ৯:১৭ অপরাহ্ণ

আল জাজিরা ইস্যুতে ইসরায়েলের নিন্দায় অ্যামনেস্টি


গো নিউজ২৪ | আন্তর্জাতিক ডেস্ক আপডেট: ০৯ আগস্ট ২০১৭ বুধবার
আল জাজিরা ইস্যুতে ইসরায়েলের নিন্দায় অ্যামনেস্টি

ইসরায়েলে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম আল জাজিরা বন্ধ করে দেয়া হবে- দেশটির এমন ঘোষণার পর এ নিয়ে উদ্বেগ জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। একে ইসরায়েল ও দখলকৃত ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে ‘গণমাধ্যমের স্বাধীনতার ওপর এক বড় আঘাত’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছে সংস্থাটি।

সোমবার অ্যামনেস্টির সংস্থাটির মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকা অঞ্চলের পরিচালক মাগদালেনা মুগরাবি বলেন, ইসরায়েল আদতে সৌদি জোটের সঙ্গেই যোগ দিচ্ছে। এমন পদক্ষেপ না নেয়ার জন্য ইসরায়েলের প্রতি আহ্বানও জানান তিনি।

এর আগে ইসরায়েলের তথ্যমন্ত্রী ঘোষণা দেন, আল জাজিরা’র সাংবাদিকদের ক্রেডেনশিয়াল বাতিল করা হবে এবং চ্যানেলটির জেরুজালেম অফিস বন্ধ করে দেয়া হবে।

মিডিয়ার স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ ও মুখবন্ধ করার যেকোনো পদক্ষেপ থেকে ইসরায়েলকে সরে আসার আহ্বান জানিয়েছে অ্যামনেস্টি। কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্ট ও ইসরায়েলের এসোসিয়েশন ফর সিভিল রাইটসও একই আহ্বান জানিয়েছে। সিপিজের মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকা বিষয়ক সমন্বয়ন শেরিফ মানসুর বলেন, ‘আল-জাজিরার কণ্ঠরোধ এই অঞ্চলে শান্তি আনবে না। বরং ইসরায়েলকে গণমাধ্যমের স্বাধীনতাবিরোধী রাষ্ট্র হিসেবে চিহ্নিত করবে।’

এর আগে কাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার সময় আল জাজিরার সম্প্রচারও নিষিদ্ধ করে সৌদি আরব, বাহরাইন এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত। এক বছর আগে থেকেই গণমাধ্যমটি বন্ধ করে রেখেছে মিসর। সৌদি ব্লকের পক্ষ থেকে কাতারকে যে ১৩ দফা দাবি দেয়া হয়েছে, তার মধ্যে অন্যতম ছিল এই গণমাধ্যমটি বন্ধ করা। তবে পরে আরব আমিরাতের পক্ষ থেকে জানানো হয়, আল জাজিরা সম্পর্কে তারা তাদের আগের অবস্থান থেকে সরে এসেছে।

আল জাজিরা বন্ধের বিষয়ে লেবাননের আমেরিকান ইউনিভার্সিটি অব বৈরুতের গবেষক বলেন, ‘এ ধরনের সরকারের জন্য এটা স্বাভাবিক। ক্ষমতা ধরে রাখতে তারা দুটি জিনিসকে টার্গেট করে: গণমাধ্যম এবং বিদেশিদের। কারণ প্রত্যেকের সংবাদের জন্য গণমাধ্যমের কাছে যায়।’

প্রসঙ্গত, আল জাজিরা মূলত কাতার থেকে পরিচালিত একটি গণমাধ্যম। এর অর্থায়নও করে দেশটির সরকার। তবে গণমাধ্যমটির সাংবাদিকরা বিভিন্ন সময়ে জানিয়েছেন, তারা স্বাধীনভাবেই কাজ করতে পারেন।

গো নিউজ২৪/ আরএস