৯ আষাঢ় ১৪২৪, শুক্রবার ২৩ জুন ২০১৭ , ১১:১০ পূর্বাহ্ণ

আমার ফাঁসি হোক, তুমি ভালো থেকো খাদিজা


গো নিউজ২৪ | গো নিউজ ডেস্ক আপডেট: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ রবিবার
আমার ফাঁসি হোক, তুমি ভালো থেকো খাদিজা

নিজের ওপর ভয়াবহ হামলার বর্ণনা দিয়ে আদালতের কাছে ছাত্রলীগ নেতা বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি জানিয়েছেন খাদিজা আক্তার নার্গিস। সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের জন্য আগামী ১ মার্চ তারিখ ধার্য করেছেন আদালত। 

আদালতের কাঠগড়ায় আসামি বদরুল আলম বলতে থাকেন, ‘আমার ফাঁসি হোক, তারপরও খাদিজা তুমি ভালো থেকো। তোমার ভালো হোক।’ 

রোববার দুপুরে সিলেট মহানগর মুখ্য হাকিম আদালতের বিচারক সাইফুজ্জামান হিরোর কাছে ঘটনার বর্ণনা দেন খাদিজা। সাক্ষগ্রহণ শেষে দণ্ডবিধির ৩৪২ ধারায় আসামি শনাক্ত করেন আদালত।

আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে থাকা আসামিকে শনাক্ত করে খাদিজা বলেন, আমি আসামি বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি চাই। সে আমাকে সারা জীবনের জন্য প্রতিবন্ধী করেছে। আমি এর বিচার চাই।

পরে আসামি পক্ষের আইনজীবী সাজ্জাদুর রহমান চৌধুরী খাদিজাকে জেরা করেন। জেরায় খাদিজা বলেন, আসামি ৫-৬ বছর আগে আমাদের বাড়িতে আমার ছোটভাইকে পড়াত।

আইনজীবী এসময় বদরুলের সঙ্গে খদিজার প্রেমের সম্পর্ক ছিল কিনা জানতে চাইলে জবাবে খাদিজা বলেন, এ কথা সত্য নয়।

এসময় আসামি পক্ষের আইনজীবী সাজ্জাদুর রহমান চৌধুরী খাদিজাকে আসামির সঙ্গে সম্পর্ক ছিল এবং মেমোরিকার্ড নেয়ার জন্য ওইদিন আসামির সঙ্গে আপনার কটাক্ষ হয় এমন প্রশ্নের জবাবেও খাদিজা বলেন, এসব কথা সত্য নয়।

এর আগে খাদিজার ওপর হামলা মামলার আসামি বদরুল আলমকেও রোববার সকাল ১০টায় আদালতে হাজির করা হয়। হামলার ঘটনার ৩ মাস ২২দিন পর রোববার প্রথমবারের মতো মুখোমুখি হন বদরুল ও খাদিজা।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি সাভার পক্ষাঘাতগ্রস্তদের পুনর্বাসন কেন্দ্রে (সিআরপি) প্রায় তিন মাস চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে নিজ বাড়ি সিলেটের আউশায় ফিরেন খাদিজা আক্তার নার্গিস।

গো নিউজ ২৪/এইচ