৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, শুক্রবার ২৪ নভেম্বর ২০১৭ , ১২:৪১ পূর্বাহ্ণ
সাকিব জামাল-এর কবিতাগুচ্ছ

অপমৃত্যুর চিরকুট চাই না


গো নিউজ২৪ | শিল্প-সাহিত্য ও সংস্কৃতি ডেস্ক আপডেট: ২৪ আগস্ট ২০১৭ বৃহস্পতিবার
অপমৃত্যুর চিরকুট চাই না

ভালোবাসা পরিমাপের ফ্যাদোমিটার যদি থাকতো
তবে যেতো বোঝা - কে ভালোবাসে কারে কতো?
কার জন্য বন্ধু তুমি নিবে আত্মহননের পথ বেছে
তার জন্য! দুঃসময়ে যে তোমায় ছুঁড়ে ফেলে গেছে!

সাবধান, এ শয়তানের প্ররোচনা-
তোমার জীবনের মূল্য- তুমি বোঝ না?

যারা বলে -
'তথাকথিত' ভালোবাসা যতো বড় জীবন ততো বড় নয়
ভুল, সবই ভুল
এ ভয়ঙ্কর তথ্য যেন তোমার মুল্যবান জীবন না করে ক্ষয়।

জানোতো-
সুসময়ে যে কাছে রয় দুঃসময়ে যায় চলে
সে বন্ধু না ।
স্বার্থপর ভীষণ, সুযোগ সন্ধানী- ভালোবাসার ছলে।

ভগ্ন হৃদয়ের বন্ধু আমার এসো সুস্থ চিন্তায় ফিরে
প্রেমে ব্যর্থ হয়ে আত্মহনন নয়। বেঁচে থাকবে ধৈর্য ধরে।
জীবন সেতো থেমে যাবার নয়- যে করে ছলনা তার তরে
কখনো কোনো অপমৃত্যুর চিরকুট চাই না তোমার ঘরে।

জোনাকী এবং জীবন 
নদীর বাঁকে হোগলাপাতার বনে 
আঁধারে বসেছে জোনাকীর হাট 
নিস্তব্ধ রাতে নির্জন মাঠ ঘাট-
আমি যাত্রী কালের নৌকায় –
চোখে দেখে এমন প্রাকৃতিক দৃশ‌্য
জীবনের মানে করি পাঠ।

মিটি মিটি জ্বলে আর নেভে-
আলো আর আঁধার -
তবু জোনাকীরা চঞ্চল!
স্বপ্ন আর দুঃস্বপ্নের খেলায় –
আশা আর নিরাশা ভরা
মানব জীবন অবিকল।

রাত গভীর, ভাবনা গভীর
দিনের বেলায় আনন্দ মেলায় 
কাটে সময় সুখের ভেলায়।
বেশতো চলে যায় দিন - হেলায় খেলায়
বিচ্ছেদের ভাবনা আসে মনে - গোধুলী বেলায়!

এরপর যখন আঁধার নামে -
রাত গভীর, ভাবনা গভীর। 
হিসেব কষে হৃদয়, অতীত করে স্মরণ।
জীবন-যৌবন, আয়-ব্যয় আর অতিবাহিত সময়
হলো কি সঠিক পথে সব কর্ম সম্পাদন?
ভেবে উথাল-পাতাল হয় এই মন।

সময় গড়ায় - চোখের পাতায় ঘুম এসে যায়
ভাবে মন- যদি ঘুম হয়ে যায় পাতাল বিছানায়!

ক্ষণিকের অতিথি তুমি- আমি 
আসা-যাওয়ার নাই জানা কোনো তিথী!
শেষ বিচারে সফলতা-বিফলতা কী? 
কী এই জীবনের মানে?
ভাবো মন বসে কাজীর আসনে - 
গভীর রাতে নিরলস ধ্যানে।

সকল মায়ের প্রতি
জীবনের প্রথম পাঠশালায় –
মাগো, তুমিই প্রথম শিক্ষা দাও
কেমন হবে তোমার সন্তান-
তাও, তুমিই গড়ে নাও।
সময় করে খানিক ভাবো-
কেমন হবে তোমার পাঠদান?
কীভাবে করবে তুমি-
এ মহান কর্ম সম্পাদন?
শিশুবেলায় তোমার দেয়া শিক্ষা
সে তো স্থায়ী আজীবন
সাদা মনের মানুষ হবার
বীজ করো এখনই বপন।

দিওনা শিক্ষা তারে –
মিথ্যা গল্প, কবিতা, গান
সত‌্যই সুন্দর বোঝাও তারে –
উত্তম চরিত্রই প্রধান।

সজাগ থেকো, শিক্ষা যেন
করে না তারে অর্থলোভী ভবিষ্যতে
নৈতিকতার ভিত গড়ে দাও শক্ত করে
কখনো সে না যায় বিপথে।
ভালো মানুষ, গুণী সন্তান
পৃথবীকে তুমি দাও উপহার
তোমার শিক্ষায় উঠুক গড়ে
বিশ্বমাঝে শান্তির গুলবাহার।
তোমার সন্তানকে মানুষ গড়ার
তুমিই হও প্রধান কারিগর
আলোর পথের দিশা দেখানোর-
মাগো, তুমিই সঠিক বাতিঘর ।
পৃথিবীর সকল মায়ের প্রতি
রইল মোর এ আহ্বান-
সর্ব উৎকৃষ্ট শিক্ষালয় হও সব মা
হোক গুণিজন সবারই সন্তান।

গোনিউজ২৪/এন

শিল্প-সাহিত্য ও সংষ্কৃতি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত